একজন গান গায় অন্যজন অভিনয়, একজন বেড়ে উঠেছে সাধারণ গ্রামীণ পরিবেশে অপরজন ঝকঝকে উন্নত শহরে। দেখতেও একজন কালো তো অন্যের রং দুধে আলতা।

শুধু কি তাই, যেখানে সব দাম্পত্যেই দেখা যায় পুরুষ সঙ্গীটি বয়সে বড় হয়, এখানেও বিপরীত! তো এত বৈপরীত্ব নিয়েও কীভাবে সুখী হবেন কীভাবে! জেনে নিন: সব সম্পর্কের ক্ষেত্রেই ভিত হচ্ছে বিশ্বাস। প্রিয় মানুষটির প্রতি বিশ্বাস রাখুন কিছুটা ছাড় দিতে শিখুন তাকেও নিজের মতো থাকতে দিন। নিজের জন্যও কিছু সময় পেয়ে যাবেন পারস্পারিক শ্রদ্ধাবোধ থাকতেই হবে। এখানে বয়সের না গুরুত্ব দিন সম্পর্কের কথা ভাবতে হবে আগে মনে রাখতে হবে, রাগ আর অভিমান সম্পর্কের সবচেয়ে বড় শত্রু হতেই পারে, আপনি যেটা করতে পছন্দ করেন না, তা আপনার সঙ্গীর পছন্দ। সব সময় নিজের পছন্দের গুরুত্ব না দিয়ে মাঝে মাঝে সঙ্গীর পছন্দমতো চলুন, খাবার খান, তার পছন্দের জায়গায় ঘুরতে যান বিপরীত মেরুর মানুষদেরও কিছু না কিছু তো মিল থাকে। সেটা খুঁজে বের করার চেষ্টা করুন নিজেদের ছোট পৃথিবী সুখে ভরে তুলুন ভালোবাসা দিয়ে। তাহলে আর কোনো পার্থক্যই বড় হয়ে সামনে আসবে না।