অনলাইন ডেস্ক ॥ যে দায়িত্ব নিয়ে বিশ্বের সবচেয়ে ক্ষমতাধর দেশের রাষ্ট্রপ্রধান হয়েছিলেন, তার চেয়েও বেশি পালন করেছেন। বিদায়ী ভাষণে এভাবেই বিগত চার বছরে মার্কিন প্রেসিডেন্ট হিসেবে নিজের সাফল্যগাঁথা তুলে ধরলেন ডোনাল্ড ট্রাম্প। হোয়াইট হাউজে শেষ কয়েক ঘণ্টা স্বেচ্ছায় একাই কাটিয়েছেন বলে তিনি গণমাধ্যমকে জানিয়েছেন। মঙ্গলবার মেয়াদের শেষ কর্মদিবসে ইউটিউবে ২০ মিনিটের রেকর্ডেড ভিডিও বার্তা পোস্ট করেন ট্রাম্প। দাবি করেন, বিশ্বের ইতিহাসে অর্থনৈতিক অগ্রগতি সবচেয়ে বেশি হয়েছে তার হাত ধরেই। বলেন, সমালোচনা এড়াতে সহজ পথ তার লক্ষ্য ছিল না কখনো। বিবৃতিতে ক্যাপিটল হিলে সাম্প্রতিক রাজনৈতিক সহিংসতার নিন্দা জানান তিনি। সমালোচনা করেন, ফেসবুক-টুইটারসহ সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে তাকে নিষিদ্ধ করাসহ রাজনৈতিক ষড়যন্ত্রের। পরবর্তী সরকারকে শুভকামনা জানালেও পুরো ভাষণে কোথাও উল্লেখ ছিল না- নবনির্বাচিত প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনকে নিয়ে। শেষ পর্যন্ত গণতান্ত্রিকভাবেই ক্ষমতা হস্তান্তর করলেও নির্বাচনে আড়াই মাসেও পরাজয় স্বীকার করেননি ট্রাম্প। সম্প্রতি জনসম্মুখে আসাও কমিয়ে দেন তিনি। নতুন প্রেসিডেন্টকে জায়গা ছাড়তে বুধবার ভোরেই হোয়াইট হাউজ থেকে সপরিবারে বিদায় নেবেন ট্রাম্প।