ইউটিউবে কোটি ভিউ হওয়ার বিষয়টি আগে চমকপ্রদ হলেও সময় বদলেছে। এখন মূল বিষয়- কোন কনটেন্ট কত দ্রুত কোটির মাইলফলক স্পর্শ করেছে, সেটি। সেই হিসাবে সম্প্রতি আলোচনায় উঠে এসেছে সিএমভি প্রযোজিত ও অপূর্ব-সাবিলা নূর অভিনীত নাটক ‘এক্সচেঞ্জ’। গত বছরের ২৩ নভেম্বর রুবেল হোসেন পরিচালিত নাটকটি ইউটিউবে প্রকাশ হয়। এরপর মাত্র ৫৩ দিনের মাথায় (১৫ জানুয়ারি) এটি অতিক্রম করে কোটি ভিউয়ের ক্লাব! যা বাংলাদেশের নাটকের ইতিহাসে দ্রুততম ভিউ বিচারে দ্বিতীয় স্থান। এর কয়েক মাস আগেই এই অবস্থানে ছিল সিএমভি প্রযোজিত ও অপূর্ব-মেহজাবীন চৌধুরী অভিনীত একই নির্মাতার আরেক নাটক ‘মিস্টার এন্ড মিস চাপাবাজ’! এটি ইউটিউবে প্রকাশের ৭৩ দিনের মাথায় এক কোটি ভিউ অতিক্রম করে। এর পরই মাত্র ৫৩ দিনে ‘এক্সচেঞ্জ’ অতিক্রম করে ‘মিস্টার এন্ড মিস চাপাবাজ’ নাটকটির রেকর্ড। ফলে তৃতীয় অবস্থানে নেমে আসে ‘চাপাবাজ’ নাটকটি। অন্যদিকে প্রথম অবস্থানে রয়েছে অপূর্ব-মেহজাবীন অভিনীত আরিয়ানের ‘বড় ছেলে’ নাটকটি। এটি ৩৩ দিনে অতিক্রম করে কোটি ভিউর ঘর। জানা গেছে, দ্রুততম কোটি ভিউয়ের প্রথম চারটি নাটকই জিয়াউল ফারুক অপূর্ব অভিনীত! তিনি বলেন, ‘সবই আসলে সৃষ্টিকর্তার ইচ্ছা আর দর্শকদের ভালোবাসার প্রতিচ্ছবি। আর কিছুই না। তা না হলে দ্রুততম সময়ের মধ্যে কোটি ভিউ হওয়া প্রথম চারটি নাটকই কেন আমার হবে! আমি বা আমরা শিল্পীরা বরাবরই চেষ্টা করি দর্শকদের পছন্দকে সর্বোচ্চ গুরুত্ব দিয়ে কাজ করতে। আমি অন্তত তা-ই করেছি সব সময়। যত দিন অভিনয় করি, সেটাই করে যাব। কারণ, দর্শকরাই পারে আমাদের বাঁচিয়ে রাখতে অথবা মেরে ফেলতে। ফলে তাদের চাওয়া-পাওয়াটাই আমার কাছে সবার আগে। আমি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করছি নতুন রেকর্ডটির সঙ্গে সংযুক্ত সবার প্রতি।’ এদিকে ‘এক্সচেঞ্জ’ নাটকে অপূর্বর সহশিল্পী সাবিলা নূর বলেন, ‘আমার ক্যারিয়ারে এটাই প্রথম কোটি ভিউ! সে হিসেবে একটু বেশি খুশি খুশি লাগছে। সেই খুশির পালে বাতাস লাগল তখন, যখন জানলাম- এটি দ্রুততম সময়ের মধ্যে কোটি ভিউ হওয়া দ্বিতীয় নাটক! কৃতজ্ঞতা জানাই আমার নির্মাতা, সহশিল্পী আর প্রযোজনা প্রতিষ্ঠানের প্রতি। এই অর্জন পুরো টিমের।’ খুব কম সময়ের ব্যবধানে সিএমভির দুটি নাটক (‘চাপাবাজ’ ও ‘এক্সচেঞ্জ’) দ্রুত কোটি ভিউয়ের ক্লাবে ঢুকে পড়া প্রসঙ্গে প্রতিষ্ঠানটির প্রধান ও স্বনামধন্য প্রযোজক এস কে সাহেদ আলী পাপ্পু বলেন, ‘ভিউয়ের প্রধান কৃতিত্ব দর্শকদের। যারা আমাদের ব্যানার ও ইউটিউব চ্যানেলের প্রতি আস্থা রেখে চলেছেন। আর আমরা যেটা করেছি, সব সময়ই দর্শকদের মানসম্মত কনটেন্ট দেওয়ার চেষ্টা করেছি। সস্তা জনপ্রিয়তা বা দর্শকদের ফাঁকি দেওয়ার চেষ্টা করিনি। তারই সুফল এসব অর্জন। সবার ভালোবাসা ও দোয়া নিয়ে আমরা এভাবেই এগিয়ে যতে চাই।’ এদিকে আওয়াজ মিলছে, একই প্রতিযোগিতায় শিগগিরই শামিল হচ্ছে সিএমভি প্রযোজিত সদ্যঃপ্রকাশিত নাটক ‘শিল্পী’। মহিদুল মহিমের রচনা ও পরিচালনায় এই নাটকে অভিনয় করেছেন আফরান নিশো ও মেহজাবীন চৌধুরী। ১৮ জানুয়ারি এটি উন্মুক্ত হওয়ার ২৪ ঘণ্টার মাথায় অতিক্রম করেছে ১০ লাখ ভিউয়ের ঘর! ধারণা করা হচ্ছে, দ্রুততম কোটি ভিউয়ের প্রতিযোগিতায় ‘‌শিল্পী’ও জায়গা করে নেবে।