দুই দশকের সাংবাদিকতা জীবন। সর্বশেষ ছিলেন ভারতের এনডিটিভিতে। সেই চাকরি ছেড়েছিলেন আমেরিকায় পাড়ি দেওয়ার জন্য। নিধি রাজদানের হার্ভার্ড বিশ্ববিদ্যালয়ে শিক্ষকতা করার কথা ছিল। কিন্তু প্রতারণার কারণে শিক্ষকতা করা হলো না রাজদানের। আসলে অনলাইন ফিশিং স্ক্যামের খপ্পরে পড়েছিলেন তিনি। নিধি রাজদান আমেরিকার হার্ভার্ড বিশ্ববিদ্যালয়ে শিক্ষকতার সুযোগ পাওয়া, আর প্রতারণার কারণে শিক্ষকতা করতে না পারা, অনলাইন প্রতারণার খপ্পরে পড়ার পুরোটা নিজের টুইটারে শেয়ার করেছেন। টুইটারে এই সাংবাদিক জানান, কেমন করে প্রতারণা করা হয়েছে তাঁর সঙ্গে। এনডিটিভির খবরে বলা হয়েছে, ২০১৯ সালের নভেম্বরে নিধি রাজদান হার্ভার্ড কেনেডি স্কুলের একটি অনুষ্ঠানে বক্তা হিসেবে আমন্ত্রণ পান। ২০২০ সালের শুরুতে এই অনুষ্ঠান হয়। প্রায়ই একই সময়ে আর একটি অনুষ্ঠানের জন্য তাঁর সঙ্গে যোগাযোগ করা হয়।তাঁরা নিধিকে জানান যে আগ্রহী হলে হার্ভার্ডে শিক্ষকতার সুযোগ পাবেন। চেষ্টা করতে দোষের কি—এ মনোভাবে আগ্রহী হয়ে নিধি রাজদানও সিভি পাঠিয়ে দেন। এর কয়েক সপ্তাহ পরে নিধির অনলাইন সাক্ষাৎকার হয় ৯০ মিনিট ধরে। এ সময় নিধির কোনো কিছু নিয়েই কোনো সন্দেহ হয়নি। তাঁর মনে হয়েছে সবকিছুই ঠিকমতোই হচ্ছে। গুগলে সার্চ করে নিধি দেখেন যে হার্ভার্ড এক্সটেনশন স্কুল প্রোগ্রামের আওতায় জার্নালিজম ডিগ্রি আছে। তাঁর কোনো সন্দেহ হয়নি। তিনি দেখেন, হার্ভার্ড এক্সটেনশন স্কুলের একটি লিস্ট আছে, সেখানে ৫০০ জন ফ্যাকাল্টি আর এর মধ্য ১৭ জন জার্নালিজম ফ্যাকাল্টির। আর এটা দেখেই নিধির মনে হয়েছিল এ প্রোগ্রামে তিনি ফিট।